ভয়ংকর ওমিক্রনের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্কবার্তা

ভয়ংকর ওমিক্রনের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে সতর্কবার্তা

স্বাস্থ্য

জুলাই ১৫, ২০২২ ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ

মহামারি করোনার দাপট কদিন ধরে বেড়ে গেছে। ভাইরাসটির দ্রুত পরিবর্তনশীল ও অতি সংক্রামক ধরন ওমিক্রনের নতুন ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীরা।

বর্তমানে করোনা বেড়ে যাওয়ার পেছনে মূলত দুটি কারণকেই দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এর মধ্যে মানুষের উদাসীনতাও রয়েছে। কারও মুখে নেই মাস্ক। এমন কি কেউ শারীরিক দূরত্বও মানতে চাচ্ছেন না। এ বিষয়গুলো মিলিয়ে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। অপরদিকে রয়েছে আবার করোনার ভ্যারিয়ান্ট। এক্ষেত্রে ওমিক্রনের বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট তৈরি করছে নানা সমস্যা।

এর মধ্যে সম্প্রতি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন বিএ.৫। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ভ্যারিয়েন্ট মানুষকে সেরে উঠার এক মাসের মধ্যেও আক্রান্ত করে দিতে পারে।

অন্য ভ্যারিয়ান্টের চেয়ে এ সাব-ভ্যারিয়েন্ট অত্যন্ত দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই চিকিৎসকরা এ ভ্যারিয়ান্ট নিয়ে সতর্ক করে দিচ্ছেন।

সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, কিছু দেশে এমন মানুষ পাওয়া গেছে, যারা একবার আক্রান্ত হওয়ার পর পরই ফের এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এমনটা কেন ঘটছে? এ নিয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিএ.৫ শরীরের ইমিউনিটিকে ফাঁকি দিতে পারে।

এ ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে নাক দিয়ে পানি গড়ানো, হাঁচি, গলাব্যথা, মাথাব্যথা, কাশি, ক্লান্তি ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দেয়। এ তথ্য দিয়েছে জো কোভিড সিম্পটমস স্টাডি। তারা বলছে, অনেক মানুষের থাকছে এ লক্ষণ।

ইউনিভার্সিটি কলেজ অব লন্ডন জেনেটিস্কের ডিরেক্টর ফ্রাংকো ব্যালক্সের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এ সময়ের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, যাদের এ রোগ আগেও হয়েছে তাদেরই এ ভাইরাস ধরছে। এক্ষেত্রে শরীরে অ্যান্টিবডিকে ফাঁকি দিচ্ছে এ ভাইরাস। তাই এ ভাইরাসকে প্রতিরোধ করতে হবে। এ পরিস্থিতিতে পুরনো সব করোনাবিধি মানা উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.