ত্বক উজ্জ্বল করবে যেসব খাবার

ত্বক উজ্জ্বল করবে যেসব খাবার

লাইফস্টাইল স্পেশাল

জুলাই ১৬, ২০২২ ১০:০৯ পূর্বাহ্ণ

ত্বকের উজ্জ্বলতা দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে? সময়ের অভাবে নেয়া হচ্ছে না ঠিক মতো ত্বকের যত্ন। এছাড়া ত্বকের যত্নে এক বড় ভূমিকা পালন করে প্রতিদিনের খাদ্যাভ্যাস। তাই ত্বকের যত্নে সচেতন হতে হবে খাবার দাবারের প্রতি।

প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় এমন খাবারগুলো রাখতে হবে যেগুলো ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে কাজ করে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ত্বকের হারিয়ে যাওয়া উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে আপনার প্রতিদিন খাদ্যাভ্যাসে কী কী রাখবেন সে সম্পর্কে-

ডার্ক চকলেট
ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে খেতে পারেন ডার্ক চকলেট। প্রায় কম বেশি সবাই চকলেট খেতে পছন্দ করে। এটি খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি এর রয়েছে নানান রকম গুণ। এটি ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। তবে ত্বকের হারিয়ে যাওয়া লাবণ্য ফিরিয়ে আনতে শুধু খেতে হবে ডার্ক চকলেট। মিল্ক চকলেট খাওয়া যাবে না একদমই। ডার্ক চকলেট ত্বক সুন্দর রাখে এবং মিল্ক চকলেট শরীরে ফ্যাট জমায় যা শরীরের জন ক্ষতিকর।

বাদাম
রোদের তাপের কারণে ত্বকের প্রাণ হারিয়ে যায় দিন দিন। তাই ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে এবং ত্বককে টানটান করতে গড়ে তুলুন নিয়মিত বাদাম খাওয়ার অভ্যাস। বাদাম ত্বকের পাশাপাশি শরীরের জন্য বেশ উপকারী। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে বাদাম।

হলুদ
হলুদ ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। প্রতিদিন এক গ্লাস দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে পান করুন। এভাবে আস্তে আস্তে আপনার ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠবে। ত্বকের জন্য এটি বেশ উপকারী। তবে শুধু ত্বকের জন্য নয়। এটি শরীরের নানান রকম রোগের সমাধান করে থাকে। এছাড়া হলুদের ফেস প্যাক বানিয়েও ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন। হলুদের ফেস প্যাক ব্যবহারে আপনি পাবেন উজ্জ্বল এবং দাগহীন ত্বক।

রসুন
প্রতিদিন সকালে খালি পেটে এক কোয়া রসুন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। রসুন ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করবে।

টকদই
মসৃণ ও দাগহীন ত্বক পেতে খেতে পারেন টকদই। এছাড়া টকদই ফেসপ্যাক হিসেবেও ত্বকে ব্যবহার করলে বেশ ভালো উপকার পাবেন।

জিরা
জিরায় এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা শরীরে জমে থাকা দূষিত উপাদান দূর করতে সাহায্য করে। শরীরে দুষিত পদার্থের পরিমাণ বেড়ে গেলে ত্বকে ব্রণের সমস্যা দেখা দেয়। ব্রণ ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট করে দেয়। তাই প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় জিরা রাখা উচিত।

মিষ্টি কুমড়া
ত্বকের যত্নে সবজি হিসেবে মিষ্টি কুমড়া অনেক উপকারী। মিষ্টি কুমড়ায় থাকা বিটা ক্যারোটিন শরীরে ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করে। ত্বককে সজীব, নরম ও সতেজ রাখতে সক্ষম মিষ্টি কুমড়া। তাই খাবারে মিষ্টি কুমড়া অবশ্যই রাখবেন।

করলা
করলায় রয়েছে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ম্যাঙ্গানিজ যা স্বাস্থ্যের পাশাপাশি ত্বকের জন্যও উপকারী। করলা ত্বকের রংয়ের অসমতা দূর করার পাশাপাশি উজ্জ্বলতা বাড়াতেও সাহায্য করে। এছাড়াও এতে রয়েছে ভিটামিন-সি যা কোষের ক্ষতি পুষিয়ে ত্বক সুস্থ্য রাখতে উপযোগী। তাছাড়া করলা কোলাজেন গঠনেও সহায়ক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.