৫০০ টাকায় পুরো মাস ইন্টারনেট সারাদেশে

৫০০ টাকায় পুরো মাস ইন্টারনেট সারাদেশে

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি স্লাইড

জুন ৬, ২০২১

সারাদেশে একই দামে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট মিলবে। গ্রাম ও শহরে ইন্টারনেটের দামের তারতম্য নিরসনে পদক্ষেপ নিচ্ছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

প্রত্যন্ত এলাকাসহ পুরো দেশ ‘এক দেশ এক রেট’ ট্যারিফের আওতায় আসছে। ইন্টারনেট সেবাদাতারা নির্দিষ্ট প্যাকেজের জন্য বেশি দাম নিতে পারবে না। এতে দামের পাশপাশি মানের তারতম্যও নিরসন হবে।

জানা গেছে, ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য তিনটি প্যাকেজ থাকবে। মাসে সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হতে পারে প্রথম প্যাকেজে। এর গতি হতে পারে ৫ এমবিপিএস। আর দ্বিতীয় প্যাকেজে মাসিক ৮০০ টাকা, গতি ১০ এমবিপিএস থাকতে পারে। তৃতীয় প্যাকেজের দাম মাসে ১ হাজার ২০০ টাকার মধ্যে থাকতে পারে। গতি ২০ এমবিপিএস হতে পারে। এই প্যাকেজগুলোর দাম আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়নি বিটিআরসি।

শহর ছাড়িয়ে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট এখন ইউনিয়ন পর্যায়ে তথা গ্রামেও পৌঁছে গেছে। তবে শহরের তুলনায় গ্রামে মাসিক বিল বেশি গুনতে হয়। কারণ হিসেবে ইন্টারনেট সেবাদারা জানান, ইউনিয়ন পর্যন্ত ব্যান্ডউইডথ নিতে অনেক বেশি ব্যয় হয়। এ কারণে দামও বেশি রাখা হয়। তবে বিটিআরসি’র এমন উদ্যোগে উপকৃত হবে জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়নের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা।

শহরের ব্যবহারকারীদের জন্যও এটি সুখবর। ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বড় শহরগুলোতেও রয়েছে দামের তারতাম্য। একটি নির্দিষ্ট প্যাকেজের দাম এলাকাভেদে বেশি-কম গুনতে হয়। ইন্টারনেট সেবাদাতারা বলছেন, এই দাম কার্যকর হলে ঢাকায় ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের দাম প্যাকেজ প্রতি মাসে ১০০ থেকে ২০০ টাকা কমবে।

২০১৯ সালের ১২ মার্চ ‘ডিজিটাল সেবায় ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক: বর্তমান ও ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছিলেন, ফিক্সড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সহজলভ্য করতে ‘এক দেশ এক রেট’ নীতি অনুসরণ করতে হবে। প্রত্যন্ত এলাকার মানুষের জন্য ইন্টারনেটের পৃথক রেট গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *