স্বাস্থ্যবিধি মেনে শীঘ্রই কারখানা খোলার তাগিদ এফবিসিসিআই’র

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শীঘ্রই কারখানা খোলার তাগিদ এফবিসিসিআই’র

অর্থনীতি

জুলাই ২৯, ২০২১ ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন, যতো শীঘ্র সম্ভব দেশের রফতানিমুখীসহ সকল শিল্প কারখানা স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলে দেওয়া প্রয়োজন।

অন্যথায়, রফতানিখাতের অর্ডার বাতিল হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা সৃষ্টি হলে বাণিজ্যখাত মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত এবং পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থা দূর্বল হয়ে পড়তে পারে।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সকালে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সঙ্গে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের বৈঠকে এফবিসিসিআই সভাপতি এ সব কথা বলেন।

এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন সরকারের কাছে আহ্বান জানিয়ে বলেন, কোভিডজনিত বিধিনিষেধের আওতায় শিল্প-কারখানা বন্ধ রাখায় অর্থনৈতিক কার্যক্রমের প্রাণশক্তি উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। ফলে সাপ্লাই চেইনে বিঘ্ন হওয়ার উপক্রম। এতে উৎপাদক থেকে ভোক্তা পর্যন্ত প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত সকলেই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। আগামীতে পণ্য-সামগ্রী সঠিকভাবে সরবরাহ ও বাজারজাত না হলে পণ্যের দাম বেড়ে যাবে। ফলে স্বল্প আয়ের ক্রেতারা ভোগান্তিতে পড়বেন।

তিনি বলেন, সর্বোপরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্ব ও দিক-নির্দেশনায় বিদ্যমান বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দা পরিস্থিতির মধ্যেও দেশের অর্থনৈতিক কার্যক্রম সচল রয়েছে এবং জাতীয় প্রবৃদ্ধি ৬.১ শতাংশ অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে বাংলাদেশ। যদি উৎপাদন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ বন্ধ রাখা হয়, তাহলে অর্থনীতির চলমান গতিধারা ব্যাহত হবে। জীবন ও জীবিকার মধ্যে সমন্বয়ের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অর্থনৈতিক কার্যক্রমকেও সচল রাখতে উৎপাদন ব্যবস্থাকে সচল রাখা জরুরি। বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতে জীবনরক্ষাকে অবশ্যই অগ্রাধিকার দিতে হবে। এ প্রেক্ষাপটে, শিল্পকারখানাকে বিধি-নিষেধের আওতামুক্ত রেখে উৎপাদন প্রক্রিয়াকে সচল রাখতে হবে।

জসিম উদ্দিন আরও বলেন, ক্ষুদ্র ও ছোট কারখানাসমূহ বন্ধ রাখায় উদ্যোক্তাগণ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। যে কারণে কারখানাগুলো ফের চালু করা অসম্ভব হয়ে পড়তে পারে। এ অবস্থায় রফতানি ও উৎপাদনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন এবং চেম্বারগুলো শিল্প-কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম সচল রাখার বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য এফবিসিসিআই’র প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সঙ্গে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিকেএমইএ সভাপতি এ কে এম সেলিম ওসমান, এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী এমপি, বিজিএমইএ সভাপতি মো. ফারুক হাসান, ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রহমান, এফবিসিসিআই’র সাবেক সহ-সভাপতি ও বিজিএমইএ সাবেক সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান, বিটিএমএ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফজলুল হক সহ অন্যান্য ব্যবসায়ী নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *