রোনালদোকে ‘না’ করে দিল পিএসজি

রোনালদোকে ‘না’ করে দিল পিএসজি

খেলা স্লাইড

জুলাই ১৫, ২০২২ ৯:৩৬ পূর্বাহ্ণ

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়তে চাওয়ার খবর পুরনো। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে ক্লাব ছাড়তে চান তিনি। দল বদলের ইঙ্গিত পেয়ে পর্তুগিজ তারকার প্রতিনিধি জর্জ মেন্ডেস আলোচনা করেছেন একাধিক ক্লাবের সঙ্গে। চেলসির পক্ষ থেকে মৃদু গুঞ্জন শোনা গেলেও কোনো অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না। বায়ার্ন, মিলানও উচ্চ বেতনে তাকে দলে ভেড়াতে চায় না। এবার নতুন গুঞ্জন, রোনালদোকে না করে দিয়েছে পিএসজি ।

ইউরোপের ক্লাব ফুটবলে একের পর এক তারকা ফুটবলারকে দলে ভিড়িয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল ফরাসি ক্লাব পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপ্পে, নেইমারের মতো দুই বিশ্বসেরা ফুটবলারের থাকার পরও গত বছরের আগস্টে তারা দলে ভিড়িয়েছিল একুশ শতকের ফুটবল জাদুকর লিওনলে মেসিকে। সে সময় ক্লাবের সভাপতি নাসের আল খেলাইফি জানিয়েছিলেন রোনালদোকে তিনি একদিন প্যারিসে নিয়ে আসবেন। যেটা তখন পর্যন্ত ছিল একটা স্বপ্নের মতোই। অথচ এখন তাকে পেয়েও দলে টানছেন না তারা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ফ্রান্সের নির্ভরযোগ্য ফুটবলবিষয়ক সাংবাদিক লরেন্স ইউলিয়েন। ইউলিয়েনের মতে, রোনালদোর এজেন্ট জর্জ মেন্ডেস পিএসজির সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন, যেন তারা রোনালদোকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে কিনে নেয়। কিন্তু পিএসজিই মেন্ডেসের এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। ফরাসি গণমাধ্যম লেকিপও জানাচ্ছে, রোনালদোকে ফিরিয়ে দিয়েছে পিএসজি।

রোনালদোর বয়সটা ৩৭। কিন্তু যে বয়সে অন্য ফুটবলাররা অবসরে যায় সে বয়সে সমানে মাঠে দৌড়ে বেড়াচ্ছেন এ পর্তুগিজ তারকা। প্রিমিয়ার লিগের গত মৌসুমে তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদো ছিলেন ম্যানইউর সর্বোচ্চ গোলদাতা। বয়স যে তাকে দমাতে পারেনি এ পারফরম্যান্সই তার প্রমাণ। তাছাড়া একটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার জন্য মরিয়া হয়ে থাকা প্যারিস জায়ান্টদের জন্য তো তাকেই বেশি দরকার। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চার আর ম্যানইউর হয়ে একটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জেতা রোনালদোও যে এ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে মরিয়া হয়ে আছেন। তারপরও কেন তাকে নিয়ে আগ্রহ নেই পিএসজির?

ইএসপিএন জানাচ্ছে, মেন্ডেস সরাসরি রোনালদোর ব্যাপারে পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি ও সদ্য দায়িত্ব পাওয়া ক্রীড়া পরিচালক লুইস কাম্পোসের সঙ্গে কথা বলেছেন। কেউই রোনালদোকে দলে নেয়ার ব্যাপারে তেমন আগ্রহ দেখাননি। পিএসজি নাকি জানিয়েছে, মেসি-নেইমার-এমবাপ্পের পর রোনালদোর মতো তারকাকে পোষার মতো টাকা খরচ করতে রাজি নয় তারা। অবশ্য এমবাপ্পেকে ধরে রাখতে না পারলে হয়তো গল্পটা ভিন্ন হতেও পারত। মেসি-রোনালদোকে একই ক্লাবে দেখার স্বপ্নও পূরণ হতো ফুটবলপ্রেমীদের। যদিও কয়েকদিন আগে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মুন্দো দেপোর্তিভো জানিয়েছিল, রোনালদোর সঙ্গে পিএসজিতে ড্রেসিং রুম ভাগাভাগি করতে চান না মেসি। বিষয়টি নিয়ে পিএসজি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে নিজের আপত্তির কথা জানিয়েছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।

এর আগে জানা গিয়েছিল রোনালদোর বিষয়ে বায়ার্নের আগ্রহের কথা। রবার্ট লেভানদোভস্কিকে হাতছাড়া হলে, বিকল্প হিসেবে তারা দলে ভেড়াবেন পর্তুগিজ তারকাকে। তবে পোলিশ তারকা দলে থাকায় রোনালদোর বিষয়ে তাদের মধ্যে আর কোনো আগ্রহ নেই। ক্লাবের প্রধান নির্বাহী অলিভার কানও জার্মানির ফুটবলবিষয়ক ম্যাগাজিন কিকারকে জানিয়েছিলেন, নিজেদের দর্শন থেকে সরে এসে বাড়তি বেতনে রোনালদোকে দলে টানতে চায় না বায়ার্ন।

দলবদলের বাজারে অবশ্য রোনালদোকে নিয়ে বেশি গুঞ্জন দেখা গেছে চেলসিকে ঘিরে। চেলসির নতুন মালিক টড বোয়েলির সঙ্গেও কথাবার্তা বলে রেখেছিলেন রোনালদোর মুখপাত্র মেন্ডেস। বোয়েলিও রোনালদোকে পেতে চান বলে ইউরোপের বেশকিছু সংবাদমাধ্যম খবর ছেপেছিল। কিন্তু ব্লুজদের কোচ টমাস টুখেল নাকি রোনালদোকে চান না নিজের ডেরায়। তাই সেখান থেকেও ইতিবাচক কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। এর আগে উচ্চ বেতনের কারণে দুই ইতালিয়ান ক্লাব ইন্টার মিলান ও এসি মিলান রোনালদোর বিষয়ে আলোচনার আগ্রহ দেখায়নি। অবশ্য পর্তুগিজ ক্লাব স্পোর্টিং লিসবন রোনালদোকে এখনও পেতে আগ্রহ বলে জানাচ্ছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.