রিয়াল-বার্সা-য়্যুভেন্তাসের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছে উয়েফা

রিয়াল-বার্সা-য়্যুভেন্তাসের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছে উয়েফা

খেলা স্পেশাল

মে ২৭, ২০২১ ১২:৫০ অপরাহ্ণ

উয়েফা-ফিফাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নতুন এক লিগের আবির্ভাব ঘটে। ‘ইউরোপিয়ান সুপার লিগ’ নাম ঘোষণার পরই নড়েচড়ে বসে ফুটবল বিশ্ব। অর্থের প্রলোভনে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লিগ, ইতালিয়ান লিগের শীর্ষ ১২টি ক্লাব নাম লিখিয়েছিল ইএসএলে (ইউরোপিয়ান সুপার লিগ)। এরপর থেকেই সমালোচনায় মুখর হয়ে উঠে ফুটবলপ্রেমীরা। অর্থের কাছে ফুটবল হারতে পারে না। এমন স্লোগানে ক্লাবগুলোর সামনে হাজির হয় সমর্থকরা।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ৬ ক্লাব নাম লিখিয়েছিল প্রস্তাবিত ইউরোপিয়ান সুপার লিগে। ম্যানচেস্টার সিটি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, টটেনহ্যাম, আর্সেনাল, লিভারপুলের সমর্থকরা সবার আগে প্রতিবাদ করে এই সিদ্ধান্তের। শুধু তাই নয়, সুপার লিগের বিপক্ষে অবস্থান নেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও।

বিদ্রোহী লিগে নাম লেখানোর কারণে ক্লাবগুলোর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছিল উয়েফা। এছাড়া সুপার লিগ কোনো খেলোয়াড় অংশ নিলে বিশ্বকাপসহ ফিফা আয়োজিত কোনো প্রতিযোগিতায় ওই খেলোয়াড় অংশ নিতে পারবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। তবে এবার বড় তিনটি ক্লাবের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে উয়েফা।

বিদ্রোহী সুপার লিগ থেকে ৯টি ক্লাব নাম প্রত্যাহার করলেও বড় তিনটি ক্লাব-রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও য়্যুভেন্তাস নিজেদের সিদ্ধান্তে অটল থাকে। সুপার লিগ থেকে বেরিয়ে না আসায় ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (উয়েফা) বাধ্য হয়েই এবার তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে। শিগগিরই এই তিন ক্লাবের বিরুদ্ধে উয়েফা আইনি লড়াইয়ে যাবে বলে জানা গেছে।

এক বিবৃতিতে উয়েফা জানায়, ‘সুপার লিগ নিয়ে উয়েফার শৃঙ্খলা কমিটি তদন্ত শেষ করেছে। উয়েফার আইন লঙ্ঘনের কারণে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও য়্যুভেন্তাসের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়ায় শুরু করতে যাচ্ছে তারা।’

উল্লেখ্য, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মতোই সুপার লিগ আয়োজন করতে চেয়েছিল ইউরোপের ১২টি ক্লাব। তবে নানা বিতর্কে শেষ পর্যন্ত পিছু হটে আসে ক্লাবগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.