ভারতে ‘অপ্রত্যাশিত পরিণতি’র মুখে টুইটার!

ভারতে ‘অপ্রত্যাশিত পরিণতি’র মুখে টুইটার!

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

জুন ৭, ২০২১

ভারতের ‘বিতর্কিত’ নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন মানতে শেষবারের মতো টুইটারকে নোটিস দিয়েছে দেশটির সরকার। না মানলে ‘অপ্রত্যাশিত পরিণতি’র মুখে পড়তে হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে।

ফেসবুক-গুগল-ইউটিউবসহ একাধিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইতোমধ্যেই এই নতুন নির্দেশনা মেনে নিয়েছে। কিন্তু নতুন আইন নিয়ে ভারতের সঙ্গে প্রায় সংঘাতের পর্যায়ে যায় টুইটার।

আর এবার সেই সংঘাতের আবহের মাঝেই সংস্থাটিকে চূড়ান্ত নোটিস দিল ভারত। আর কোনো সময় দেওয়া যাবে না বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। খবর জিনিউজের।

শনিবার (৫ জুন) ভারতের তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাইবার আইন বিভাগের গ্রুপ কোঅর্ডিনেটর রাকেশ মাহেশ্বরী দেশটিতে টুইটারের ডেপুটি জেনারেল কাউন্সেল জিম বেকারকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দিয়েছেন।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, নতুন আইন নিয়ে সরকারের পাঠানো আগের চিঠির যে জবাব টুইটার দিয়েছে, তাতে আইনটিতে পূর্ণ সম্মতি আছে কি না, তা পরিষ্কার নয়।

ভারতে ২০২১ সালের তথ্যপ্রযুক্তি আইন কার্যকর হয় গত মাসে। নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইনে ভারতে বাকস্বাধীনতা খর্ব করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে টুইটার।

এ নিয়ে দেশটির সঙ্গে দ্বন্দ্ব শুরু হয় সংস্থাটির। টুইটারকে সতর্ক করে ভারতের স্পষ্ট বার্তা, বাকিদের মতো টুইটারকেও মেনে চলতে হবে নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন। কার্যকর না করলে নতুন আইন অনুযায়ী কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে টুইটারের বিরুদ্ধে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *