ব্যাটিং পজিশন নিয়ে রাসেল ডমিঙ্গোর ফর্মুলা ব্যর্থ

ব্যাটিং পজিশন নিয়ে রাসেল ডমিঙ্গোর ফর্মুলা ব্যর্থ

খেলা স্পেশাল

মে ১০, ২০২১ ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ব্যাটিং পজিশন নিয়ে হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর ফর্মুলা পুরোপুরি ব্যর্থ। এতে নেতিবাচক প্রভাবে পড়েছে দলে। তাই ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ সামনে রেখে সাকিবকে পুনরায় তিন নম্বরে ব্যাট করানো উচিত।

এমনটাই বলছেন ক্রিকেট বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম। শুধু তাই না, মিডল অর্ডারে ইমরুল কায়েস ও ৭ নম্বরে আফিফ হোসেনকে খেলানোয় মত এই বিশেষজ্ঞর।

তিন নম্বর ব্যাটিং পজিশনে বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানরাই শাসন করেছেন। এই তো গেলো বিশ্বকাপ মঞ্চে তিন নম্বর পজিশনে সাকিব যা করেছেন, তা আর কেউই করতে পারেননি।

কিন্তু, সাকিবের অমন বিরল অর্জনের পরেও মন ভরেনি হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর। উইন্ডিজের বিপক্ষে সাকিবকে চারে নামিয়ে তিনে শান্তকে পরখ করেন। ফলাফল শান্ত পুরোপুরি ব্যর্থ।

আর সাকিব এক বছর নিষেধাজ্ঞার পর পজিশন হারিয়ে চার নম্বরে ব্যাট করে হন সিরিজ সেরা। তারপরেও থামেনি কোচ ডমিঙ্গোর পর্যবেক্ষণ। নিউজিল্যান্ড সিরিজে শান্তকে বাদ দিয়ে সৌম্যকে ৭ নম্বর থেকে আবারও খেলানো হয় ওই তিন নম্বর পজিশনে।

এতেও লাভ হয়নি। গুরুত্বপূর্ণ এই তিন নম্বর পজিশনে ব্যাটসম্যান সাকিবের বিকল্প পাওয়া যায়নি। তাই লঙ্কা সিরিজে ওই সাকিবেই রাখতে হচ্ছে ভরসা।

ক্রিকেট বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম বলেন, ‘আমার কাছে এটা বেশ নেচিবাচক চিন্তাভাবনা মনে হয়। আমরা দেখেছি, দুই তিনকে দিয়ে চেষ্টা করা হয়েছে এবং তারা ফেল করেছে। তাই আমার মনে হয়, সাকিবই সবচেয়ে ভালো বিকল্প।’

২০২৩ বিশ্বকাপের আগে হাতে সময় আছে অনেক। কিন্তু, ওয়ানডে ম্যাচ হাতে গোনা ২০ থেকে ২৩টা খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। তাই আদর্শ ব্যাটিং পজিশন নির্ধারণে এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে টিম ম্যানেজমেন্টের।

এই যেমন তিন টপ অর্ডার তামিম-লিটন-সাকিব। মিডল অর্ডারে চার নম্বরে মুশফিক ও ৬ নম্বরে মাহমুদুল্লাহ। তাহলে ৫ নম্বরে কে? সেক্ষেত্রে অধিনায়ক তামিমের চাওয়া অনুযায়ী ইমরুলকে এই পজিশনে খেলাটাকে ইতিবাচক বলছেন, ক্রিকেট বিশেষজ্ঞারা।

কোচ ও ক্রিকেট বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম আরও বলেন, ‘পাঁচ নম্বরে ইমরুল কায়েসকে চিন্তা করা যেতে পারে। তার পাশাপাশি আরও কয়েকজনকে মাথা রাখতে পারি। যাদের আমরা এক-দুই বছর দেখব।’

২০২৩ ভারত বিশ্বকাপের ব্যাপারটি মাথায় রেখে সেরা একাদশে ৭ জন ব্যাটসম্যান রাখার পরিকল্পনা করা উচিত বাংলাদেশের। সেক্ষেত্রে ৭ নম্বর পজিশনে আফিফ হোসেনে আস্থা রাখার পরামর্শ বিশ্লেষকদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.