বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম সুইমিংপুল এখন দুবাইতে

বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম সুইমিংপুল এখন দুবাইতে

আন্তর্জাতিক

জুলাই ১০, ২০২১ ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ

সুইমিং পুলের নিচে যেন রয়েছে আস্ত একটা শহরের সুযোগ-সুবিধা। দানবীয় এক ঝিনুকের আদলে তৈরি ১৯৬ ফুট (৬০ মিটার) গভীর পুলের একবারে উপর থেকে শেষ তল পর্যন্ত আছে ১ কোটি ৪০ লাখ লিটার স্বচ্ছ পানি।

বলা হচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে সদ্য উন্মুক্ত বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম সুইমিংপুল ‘ডিপ ডাইভ দুবাই’ এর কথা। এখানে ডুব দিয়ে সাঁতারুরা এ ঘর থেকে ও ঘরে যেতে পারবেন। সুইমিং পুলের নিচে রয়েছে আধুনিক সব রকম ব্যবস্থা। রয়েছে বিলিয়ার্ড খেলার জায়গা, লাইব্রেরি, রেস্টুরেন্ট, কনফারেন্স কক্ষসহ বিভিন্ন আধুনিক সুবিধাও।

এতদিন বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম সুইমিংপুল ছিল পোল্যান্ডের দখলে, যার গভীরতা ছিল ৪৫ মিটার বা ১৪৮ ফুট প্রায়। কিন্তু ৬০ মিটার বা ১৯৬ ফুট গভীর সুইমিংপুল নির্মাণ করে বিশ্ব রেকর্ডটি নিজেদের দখলে নিয়েছে দুবাই।

দুবাইয়ের গভীর এ সুইমিংপুলটি আন্তর্জাতিক অলিম্পিক গেমসে থাকা ৬টি সুইমিংপুলের সমান। গত মাসের ২৭ জুলাই এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে গভীরতম সুইমিংপুলের খেতাবে ভূষিত করেছে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড।

দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স শেখ হামদান বিন মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মাকতুম এটি উদ্বোধন করেছেন। তিনি ছিলেন পরিদর্শনকারী ব্যক্তিদের মধ্যে প্রথম। সুইমিংপুলটি পরিদর্শন শেষে এক ভিডিও বার্তায় তিনি অসাধারণ অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন। চলতি বছরই দর্শনার্থীদের জন্য এটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

সুইমিংপুলটির পানির তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা সাঁতারের পোশাক পড়ে সাঁতার কাটার জন্য আরামদায়ক।

পুলের ভিতরে ৫৬টি ক্যামেরা রয়েছে। যেকোনো অ্যাঙ্গেল থেকে পুলের নিচের সব দৃশ্য ধরা পড়বে। রয়েছে লাইট অ্যান্ড সাউন্ড সিস্টেম।

পানির স্বচ্ছতা বজায় রাখতে প্রতি ৬ ঘণ্টা পর পর সিলিসিয়াস আগ্নেয় পাথরের মাধ্যমে তা ফিল্টার করা হয় বলে ডিপ ডাইভের আয়োজকরা জানিয়েছেন। মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসা এই ফিল্টার প্রযুক্তি তৈরি করেছে।

পুলটি রয়েছে ঝিনুক আকৃতির ১ হাজার ৫০০ বর্গমিটারের বিশাল এক কমপ্লেক্স ভবনের ভেতরে। এই কমপ্লেক্সে রয়েছে একটি রেস্তোরাঁ। এছাড়াও রয়েছে ভিডিও গেমসহ নানা খেলাধুলার সুযোগ। মন চাইলে চালিয়ে নেয়া যাবে সাইকেলও। পুলের নিচে রয়েছে সিনেমা শুটিংয়ের স্টুডিও। এডিটিংয়ের জন্য পাশেই রয়েছে এডিটিং রুম। আর বাড়তি হিসেবে থাকছে মনমাতানো আলো আর সুরের খেলা।

সূত্র: সিএনএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *