বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু ৫০ লাখ ছুঁই ছুঁই

বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু ৫০ লাখ ছুঁই ছুঁই

স্পেশাল স্বাস্থ্য

অক্টোবর ২৯, ২০২১ ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ

স্বাস্থ্য ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে করোনায় চলতি সপ্তাহের শুরু থেকে সংক্রমণ ও মৃত্যু ওঠানামা করছে। তবে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কিছুটা কমেছে। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তিদের সংখ্যা প্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সংস্থাটির তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মৃত্যু হয়েছে আরও ৭ হাজার ৮৫৫ জনের, শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ৭৫ হাজার ৫১৫ জন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) করোনায় মৃত্যু হয় ৮ হাজার ৫৮৭ জনের, শনাক্ত হয় ৪ লাখ ৭৩ হাজার ৫৮২ জন।

এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ কোটি ৬২ লাখ ৪৬ হাজার ২০৬ জন এবং মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৯ লাখ ৯৫ হাজার ৯২৫ জনে।

ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে জানা গেছে করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছে ৪ কোটি ৬৬ লাখ ৮৫ হাজার ১৪৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ৬৩ হাজার ৭৮৪ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় এবং মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় ৩ কোটি ৪২ লাখ ৪৫ হাজার ৫৩০ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৫৭ হাজার ২২১ জনের।

আক্রান্তে তৃতীয় ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমিত হয়েছেন ২ কোটি ১৭ লাখ ৮১ হাজার ৪৩৬ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৭ হাজার ১২৫ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে থাকা যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৯ লাখ ৩৬ হাজার ১৫৫ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ৪০ হাজার ২০৬ জন।

পঞ্চম স্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ লাখ ৯২ হাজার ৬৯৭ জন। মারা গেছেন ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫৭ জন।

আক্রান্তের তালিকায় তুরস্ক ষষ্ঠ, ফ্রান্স সপ্তম, ইরান অষ্টম, আর্জেন্টিনা নবম এবং স্পেন দশম অবস্থানে রয়েছে। এ তালিকায় বাংলাদেশে অবস্থান দাঁড়িয়েছে ৩০তম।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.