বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট: তৃতীয়দিন শেষে চালকের আসনে টাইগাররা

বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট: তৃতীয়দিন শেষে চালকের আসনে টাইগাররা

খেলা

জুলাই ১০, ২০২১ ১০:৫২ পূর্বাহ্ণ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্ট ম্যাচের তৃতীয়দিনে খেলা শেষে চালকের আসনেই সফররত বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। এদিন নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মেহেদি হাসান মিরাজ এবং সাকিব আল হাসানের ঘূর্ণিতে ২৭৬ রানে জিম্বাবুয়ে অলআউট হওয়ার পর শেষ বিকেলের কোন উইকেট না হারিয়ে ৪৫ রান তুলে নেন টাইগাররা। ফলে ২৩৭ রানের লিড নিয়ে তৃতীয়দিনের খেলা শেষ করে সফরকারীরা।

হারারে ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই হয়েছে সফরকারীদের। তৃতীয় সেশনে ব্যাট করে ওপেনিং জুটিতে অপ্রতিরোধ্য ৪৫ রানের জুটি গড়েন দুই টাইগার ওপেনার সাদমান ইসলাম এবং সাইফ হাসান। দিনশেষে ২০ রানে সাইফ এবং ২২ রানে সাদমান অপরাজিত থাকেন।

এর আগে দিনের শুরুতে দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানের হাত ধরে দিনের শুরুটা দুর্দান্ত ছিল জিম্বাবুয়ের। দ্বিতীয় উইকেট জুটি কাইতানো এবং টেলর মিলে তুলেন ১১৫ রান। সেই সঙ্গে উভয়ই ব্যক্তিগত অর্ধশতক পূর্ণ করেন।

রান তুলতে ব্যস্ত হয়ে উঠা দলীয় অধিনায়ক টেলরকে আউট করে দিনের প্রথম উইকেট তুলে নেন টাইগার বোলিং অলরাউন্ডার মেহেদি মিরাজ। ইনিংসে ৫৭তম ওভারে তার করা বলে ক্যাচ তুলে দেন টেলর। আউট হওয়ার পূর্বে করেন ৮১ রান। তৃতীয় উইকেট জুটিতে আপনতালে ব্যাট করতে থাকেন কাইতানো এবং মেয়ার্স।

সাকিব আল হাসানে বলে ২৭ রানে মেহেদি মিরাজ হাতে ক্যাচ তুলে দেন প্যাভিলিয়নে ফিরে যান অভিষিক্ত মেয়ার্স।

দলীয় ২২৫ রানে ৩ উইকেট হারালেও তখন পর্যন্ত সুবিধাজনক অবস্থানেই ছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু এরপর মেহেদি হাসান মিরাজ এবং সাকিব আল হাসানের ঘূর্ণিতে রীতিমতো কাবু হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের ব্যাটিং লাইনআপ। পড়তে থাকে একের পর এক উইকেট। চতুর্থ এবং পঞ্চম উইকেটে ব্যাট করতে নামা টেনসাই মারুমা এবং রয় কায়া ফিরেছেন শূন্যরানেই।

পরের উইকেট অবশ্য উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান রেভিস চাকাভাকে সঙ্গে নিয়ে আরো একবার প্রতিরোধের চেষ্টা চালান ওপেনার কাইতানো। কিন্তু বল হাতে আবারো দিশেহারা করে দেন জিম্বাবুইয়ান ব্যাটসম্যানদের। পরপর নিজের তিন ওভারে তিন উইকেট তুলে নিয়ে ইনিংসে নিজের পঞ্চম পূর্ণ করে মিরাজ। অন্যদিকে বাকি কাজটা করেন সাকিব।

অভিষিক্ত কাইতানো আউট হন ব্যক্তিগত ৮৭ রানে। ৩১১ বলে খেলা তার এই ইনিংসটি ৭টি চারে সাজানো। পরের চারজন ব্যাটসম্যানের মধ্যে ডোনাল্ট তিরিপানো এবং ব্লেসিং মুজারাবানি ২ রান করে করেন। আর রানের খাতায় খুলতে পারেননি ভিক্টর নুয়াচি এবং রিচার্ড এনগারাভা।

বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ পাঁচটি উইকেট নেন মেহেদি হাসান মিরাজ। সাকিব আল হাসান নেন চারটি উইকেট। আর একটি উইকেট তাসকিনের।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মাহমুদউল্লাহ অপ্রতিরোধ্য সেঞ্চুরি এবং মুমিনুল, লিটন এবং তাসকিনদের হাফসেঞ্চুরির উপর ভর করে সবকটি উইকেট হারিয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংসে পাহাড় সমান ৪৬৮ রান সংগ্রহ করে সফররত বাংলাদেশ দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *