পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যাবে সাতক্ষীরার ১২ হাজার নেতা-কর্মী

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যাবে সাতক্ষীরার ১২ হাজার নেতা-কর্মী

দেশজুড়ে

জুন ২১, ২০২২ ১২:৩৪ অপরাহ্ণ

মনিরুজ্জামান মনি, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা জেলা থেকে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ৩শ’ বাসে করে প্রায় ১২ হাজার নেতা-কর্মী পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। এর বাইরে ব্যক্তি উদ্যোগে অনেকেই উদ্বোধনী অনুষ্ঠনে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘিরে সারাদেশের ন্যায় সাতক্ষীরা জেলাতেও বইছে উৎসবের আমেজ। পাড়া-মহল্লায় গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, সভা-সেমিনারসহ মিষ্টি বিতরণ করছেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সাথে সাথে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলসহ সারাদেশের মানুষের শক্তিশালী যোগাযোগ স্থাপনসহ সকলের কাঙ্খিত স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে বলে মন্তব্য করছেন সাধারণ মানুষ থেকে সমাজের সুধীজনেরা। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে হাটে-বাজারে সর্বত্র এখন পদ্মা সেতু নিয়ে চলছে সরব আলোচনা।

এছাড়া বাংলাদেশসহ পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতেও বিজার করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ঢুকলেই দেখা যাচ্ছে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতও বাংলাদেশের পদ্মাসেতু তথা সরকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। পদ্মাসেতুকে নিয়ে দেশে ও দেশের বাইরে চলছে আলোচনা-সমালোচনা, ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারসহ নানান হিসেব নিকেশ। পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘিরে এরইমধ্যে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচিও দেয়া হয়েছে। আয়োজন করা হয়েছে পদ্মাসেতুর জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের। তবে দেশের সিলেট বিভাগে বন্যা পরিস্থিতির কারণে উদ্বোধন অনুষ্ঠান কিছুটা ব্যহত হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন দলীয় নেতা-কর্মীরা।

এদিকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি হিসেবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশের সকল জেলা-উপজেলা থেকে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা অংশ নেবেন বলে জানা গেছে। এরমধ্যে সাতক্ষীরা জেলা থেকে আওয়ামী লীগের প্রায় ১২ হাজার নেতা-কর্মী পদ্মাসেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র। এর বাইরেও সাতক্ষীরা জেলা থেকে ব্যক্তি উদ্যোগে অনেকেই এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে। এসব বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. নজরুল ইসলাম জানান, ‘কোন রাজনৈতিক ব্যক্তি নেতৃত্বে জেলা থেকে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কেউ যাচ্ছে না। আমাদের কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ৩শ’ বাসে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে ২৫ জুন ভোর বেলা রওয়ানা দেবো। ’

তিনি আরো জানান, ‘সাতক্ষীরার প্রত্যেক উপজেলা থেকে নির্ধারিত ২৫ থেকে ৩৫টি করে বাস ছাড়া হবে। এছাড়া সদর উপজেলা থেকে ৬০টি বাসে করে নেতা-কর্মীদের নিয়ে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগদান করবো’।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘিরে কেন্দ্রীয় নির্দেশনার মধ্যে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়া ছাড়াও জেলার সকল অঞ্চলে পাড়া-মহল্লায় উৎসব করার কথাও বলা হয়েছে। যেহেতু সকল নেতা-কর্মী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবে। সেখান থেকে না ফেরা পর্যন্ত পাড়া-মহল্লার উৎসব সম্পন্নের বিষয়ে এখন বলা যাচ্ছে না। তবে আশা করছি পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থেকে ফিরে আমরা দলীয় নেতৃবৃন্দের সহযোগীতায় পাড়া-মহল্লায় উৎসব করতে পারবো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.