দেড় কেজি মাংস ও ৪ কেজি চিংড়ি খেয়ে ‘কালো তালিকা’য় ফুড ভ্লগার

দেড় কেজি মাংস ও ৪ কেজি চিংড়ি খেয়ে ‘কালো তালিকা’য় ফুড ভ্লগার

মজার খবর স্পেশাল

নভেম্বর ২০, ২০২১ ৮:২১ পূর্বাহ্ণ

চীনের ভোজনরসিক ক্যাং। ফুড ভ্লগার হিসেবেই তিনি পরিচিত। খাওয়ার সময় প্রায় সময়ই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে লাইভে আসেন। আর এ খাওয়ার কারণেই এবার বিপত্তিতে পড়তে হয়েছে ক্যাংকে।

বেশি খেয়ে এক বুফে রেস্তোরাঁর কালো তালিকায় পড়েছেন এ ফুড ভ্লগার। চীনের ‘হানদাদি সি ফুড বারবিকিউ বাফেট’ রেস্তোরাঁয় ঘটেছে এ ঘটনা। খবর বিবিসির।

ক্যাংয়ের খাবার নিয়ে এ আজব ঘটনা এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে বেশ ভাইরাল হয়েছে।

বিবিসি জানায়, ওই রেস্তোরাঁয় প্রথমবার গিয়ে দেড় কেজি মাংস খেয়েছিলেন তিনি। পরেরবার গিয়ে চিংড়িই খান সাড়ে তিন কেজি থেকে চার কেজি।

তবে খাওয়ার কারণে নিষেধাজ্ঞায় পড়ে বেশ চটেছেন ক্যাং। রেস্তোরাঁর এমন আচরণ ‘বৈষম্যের’ বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। তার মতে, ‘আমি বেশি খেতে পারি, এটা কি কোনো দোষের কিছু? আমি তো কোনো খাবার নষ্ট করিনি।’

এদিকে ক্যাংকে নিয়ে বেশ বেকায়দায় পড়েছিলেন বলে জানিয়েছেন ওই রেস্তোরাঁর মালিক। ক্যাং এলেই নাকি তার পকেট ফাঁকা করে দিয়ে যেতেন। তিনি বলেন, ক্যাং যখন দুধ খেতেন, ২০ থেকে ৩০ বোতল খালি করে দিয়ে যেতেন। মাংসের দিকে তার নজর পড়লে পুরো ট্রে খালি হয়ে যেত। আর অন্যরা যেখানে চিমটি দিয়ে চিংড়ি তোলেন, সেখানে ক্যাং পুরো ট্রেটাই দখলে নিতেন।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা মন্তব্য এসেছে। খাবার দিতে না পারলে বুফে রেস্তোরাঁ খোলার কোনো দরকার নেই বলেও মনে করছেন অনেকে। আবার রেস্তোরাঁর মালিকের জন্য অনেকে দুঃখপ্রকাশ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *