ঝিনাইগাতী থেকে এমপি পদে দলীয় মনোনয়ন চাওয়ায় শ্রীবরদীদের চক্ষুশূল আওয়ামী লীগ নেতা নাইম

ঝিনাইগাতী থেকে এমপি পদে দলীয় মনোনয়ন চাওয়ায় শ্রীবরদীদের চক্ষুশূল আওয়ামী লীগ নেতা নাইম

দেশজুড়ে

আগস্ট ১০, ২০২২ ৭:৩৮ অপরাহ্ণ

ঝিনাইগাতী, শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরের ঝিনাইগাতী থেকে এমপি পদে দলীয় মনোনয়ন চাওয়ায় শ্রীবরদী উপজেলার বর্তমান সংসদ সদস্য একেএম ফজলুল হক চাঁনসহ অন্যান্য সম্ভাব্য প্রার্থীদেরও চক্ষুশূল হয়ে উঠেছে আওয়ামী লীগ নেতা এসএমএ ওয়ারেজ নাইম।

এ অভিযোগ ঝিনাইগাতী উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃনমুল নেতাকর্মীসহ উপজেলাবাসীর। শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতী উপজেলা নিয়ে গঠিত শেরপুর – ৩ আসন। আসনটির পূর্ব দিকে ঝিনাইগাতী উপজেলা ও পশ্চিম দিকে শ্রীবরদী উপজেলা।

জানা গেছে, দেশ স্বাধীনের পর থেকেই বড় কোন রাজনৈতিক দল ঝিনাইগাতী উপজেলা থেকে সংসদ সদস্য পদে দলীয় মনোনয়ন দেয়নি। ফলে যতবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন শুধু শ্রীবরদী উপজেলা থেকেই। এ কারনে দীর্ঘ ৫০ বছরেও এমপির স্বাদ পায়নি ঝিনাইগাতী উপজেলাবাসী। আর বড় রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে একাধিক প্রার্থীও রয়েছে শ্রীবরদী উপজেলাতেই ।

অপরদিকে ঝিনাইগাতী উপজেলায় প্রার্থী নেই বললেই চলে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে ঝিনাইগাতীতে বড় রাজনৈতিক দলগুলোতে এমপি প্রার্থীতো দুরের কথা দলে যোগ্য নেতৃত্বেরও অভাব রয়েছে। এ কারণে উপজেলা আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত ও যুগোপযোগী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে ১৯৯১ সালে শিল্পপতি এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইমকে আওয়ামী লীগে যোগদান করান দলের দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ।

আওয়ামী লীগে যোগদানের পরপরই তিনি ঝিনাইগাতী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। আর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হবার পর থেকেই এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম শেরপুর- ৩ ( ঝিনাইগাতী -শ্রীবরদী) আসন থেকে এমপি প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেন। তিনি দলীয় মনোনয়ন চাওয়ায় বর্তমান সংসদ সদস্য একেএম ফজলুল হক চাঁনসহ শ্রীবরদী উপজেলার অন্যান্য প্রার্থীদের ও চক্ষুশূল হয়ে পরেন নাইম।

শ্রীবরদী উপজেলার এমপি প্রার্থীরা চাইছেন এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম যেন ঝিনাইগাতী উপজেলা আওয়ামী লীগে টিকে থাকতে না পারেন। এ উদ্দেশ্যে লক্ষ্য করতে পারছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল। গেছে শ্রীবরদী উপজেলার থেকে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য সংসদ সদস্য প্রার্থীদের মধ্যে এ মনোভাব লক্ষনীয় বিষয়।

এ সব অভিযোগ ঝিনাইগাতী উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃনমুল নেতাকর্মীদের পাশাপাশি উপজেলার সচেতন মহলের । দলীয় সুত্রে জানা গেছে, এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম তৃতীয় বারের মতো উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করে আসছিলো। তিনি দু দফায় ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে পশ্চিমাদের ষড়যন্ত্রের জয়লাভ করতে পারেননি। তৃতীয় দফায় তিনি জয়লাভ করেন। বর্তমানে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

গত ৯ মে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনে ও পশ্চিমাদের ষড়যন্ত্রের শিকার হন তিনি। পশ্চিমারা চাইছেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসএম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম যাতে দলের দায়িত্বে নিয়োজিত থাকতে না পারেন। এ নিয়ে শুরু হয়েছে গভীর ষড়যন্ত্র।

উপজেলার ৭ ইউনিয়নের সভাপতি সম্পাদকসহ তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের সাথে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইম বলেন আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে আমি রাজনৈতি করি। রাজনীতিতে ষড়যন্ত্র আর উত্থান পতন মেনে নিয়েই রাজনীতি করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.