জোড়া গোলে মেসির রেকর্ড, সহজ জয় আর্জেন্টিনার

জোড়া গোলে মেসির রেকর্ড, সহজ জয় আর্জেন্টিনার

খেলা

সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ ৯:৪৪ পূর্বাহ্ণ

জ্যামাইকার বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে বদলি হিসেবে নেমে জোড়া গোল করেছেন লিওনেল মেসি। আর তাতে সহজ জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। এদিকে হন্ডুরাসের পর জ্যামাইকার বিপক্ষেও জোড়া গোল করে আন্তর্জাতিক ফুটবলে মোখতার দাহারিকে পেছনে ফেলে সর্বোচ্চ গোল স্কোরের তালিকায় সেরা তিনে জায়গা করে নিয়েছেন মেসি।

নিউ জার্সির রেড বুল অ্যারেনায় বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) জ্যামাইকাকে ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। মেসির জোড়া গোল ছাড়াও আলবিসেলেস্তেদের হয়ে একটি গোল করেছেন জুলিয়ান আলভারেজ। এই জয়ে টানা ৩৫ ম্যাচে অপরাজিত রইল দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

জ্যামাইকার বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর আগে লিওনেল মেসির থাকা, না থাকা নিয়ে দেখা দিয়েছিল অনিশ্চয়তা। গুঞ্জন সত্যি করে তাকে ছাড়াই শুরুর একাদশ সাজিয়েছিলেন লিওনেল স্ক্যালোনি। কিন্তু শেষমেশ মেসিকে নামতেই হলো মাঠে। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে নেমে এ আর্জেন্টাইন তারকা তার বাঁ পায়ের জাদুতে করেছেন জোড়া গোল।

এ নিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ১৬৪ ম্যাচে মেসির গোল সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৯০তে। আর তাতে তিনি পেছনে ফেলেছেন মালয়েশিয়ার মোখতার দাহারিকে। ১৪২ ম্যাচে তার পা থেকে এসেছে ৮৯টি গোল। মেসির ওপরে ১০৯ গোল করে ইরানের আলি দাঈ আছেন দুইয়ে। আর ১১৭ গোল করে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

এদিকে বিশ্বকাপের আগে শেষবারের মতো আন্তর্জাতিক ম্যাচে মাঠে নেমেছে আর্জেন্টিনা। দলের কোচ স্ক্যালোনি গত চার বছর ধরে যে দল ঘুচিয়েছেন তার শেষ পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছিল হন্ডুরাস ও জ্যামাইকার বিপক্ষে ম্যাচে। দুই ম্যাচেই আলো ছড়িয়েছেন সে এক তারকাই। মেসি ছাড়া বাকিরা খুব একটা পারফরম্যান্স ঝলক দেখাতে পারেনি ম্যাচে। বিশেষ করে ফরোয়ার্ডের ফুটবলাররা।

ম্যাচে ৬৭ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের উদ্দেশ্যে ১৭টি শট নেয় আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ডের ফুটবলাররা। এর মধ্যে মাত্র ৮টি শট লক্ষ্যে থাকলেও তারা সফল হয় মাত্র ৩টি শটে। আলবিসেলেস্তেদের অবশ্য ম্যাচের শুরু থেকে চেপে ধরার চেষ্টা করে জ্যামাইকা। তবে সুযোগ বের করে একের পর এক আক্রমণ চালায় আর্জেন্টিনা। পঞ্চম মিনিটে গিদো রদ্রিগেসের শট কোনোমতে ফিরিয়ে দেন জ্যামাইকা গোলরক্ষক। সফল হতেও খুব বেশি সময় নেয়নি দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

ম্যাচের ১৩ মিনিটেই লিড তুলে নেয় তারা। আক্রমণে উঠে লাউতারো মার্টিনেজ বল বাড়ান আলভারেজের উদ্দেশে। তরুণ এ স্ট্রাইকার জ্যামাইকার রক্ষণভাগের চার খেলোয়াড়কে বোকা বানিয়ে ডি বক্সে ঢুকে বল জড়ান জালে। ২০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ পেয়েছিলেন আলভারেজ। কিন্তু এবার তার শট খুঁজে নিতে পারেনি ঠিকানা। ১১ মিনিট পর আরও একটি সুযোগ হাতছাড়া করেন গুইদো রদ্রিগেজ। দুই মিনিট পর জিওভানি লো সেলসোর নেয়া দূরপাল্লার শটও থাকেনি লক্ষ্যে।

ফরোয়ার্ডের ফুটবলারদের একের পর এক সুযোগ মিসের মহড়ায় দ্বিতীয়ার্ধে স্ক্যালোনি লাউতারো মার্টিনেজকে তুলে মাঠে নামান মেসিকে। মাঠে নামার ১৩ মিনিট পরই গোলের দারুণ সুযোগ পান মেসি। তবে ৬৮ মিনিটে দুরূহ কোণ থেকে তার শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান জ্যামাইকান গোলরক্ষক। একের পর এক আক্রমণে মেসি অবশেষে ম্যাচের ৮৬ মিনিটে পান কাঙ্ক্ষিত সাফল্যের দেখা।

ডিবক্সের বাইরে থেকে দারুণ ফিনিশিংয়ে জ্যামাইকান গোলরক্ষককে পরাস্ত করে তিনি বল জড়ান জালে। এর তিন মিনিট পরই ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান মেসি। এবার তিনি বল জালে জড়ান ফ্রি কিক থেক। মেসি সাধারণ ফ্রি কিকে বল তুলে মারলেও, ৮৯ মিনিটে জ্যামাইকানদের বোকা বানিয়ে তিনি গড়ানো শট নেন, ঝাঁপিয়েও বলের নাগাল পাননি গোলরক্ষক। শেষ পর্যন্ত তার জোড়া গোলে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে আর্জেন্টিনা।

এর আগের প্রীতি ম্যাচে হন্ডুরাসকেও ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছিল স্ক্যালোনির শিষ্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *