জোরে দাঁত ব্রাশ করলে যে বিপদ হতে পারে

জোরে দাঁত ব্রাশ করলে যে বিপদ হতে পারে

লাইফস্টাইল স্পেশাল

নভেম্বর ২৬, ২০২১ ৮:৪১ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর দাঁত মানেই একগাল সুন্দর হাসি। তাই দাঁতের যত্ন নেওয়া স্বাস্থ্যকর অভ্যাস। কিন্তু, দাঁতের অতিযত্ন করছেন কি? মানে, দাঁত ব্রাশ করার সঠিক নিয়ম জানেন কি? যতবার খুশি দাঁত ব্রাশ করছেন বা মিনিটের পর মিনিট দাঁত ঘষেই চলেছেন? তবে খুব ভুল করছেন।

সুস্থ শরীরের পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর দাঁতের সুরক্ষারও প্রয়োজন। কিন্তু সঠিক নিয়ম মেনে দাঁত ব্রাশ না করলে দাঁতের সঙ্গে সঙ্গে স্বাস্থ্যের নানা সমস্যা দেখা দেয়। তাই দাঁত মাজার সঠিক নিয়ম জেনে নেওয়া খুবই জরুরি-

দাঁত খুব চাপ দিয়ে জোরে ব্রাশ করার অভ্যাস অনেকেরই রয়েছে। এর ফল ভয়ঙ্কর হতে পারে বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, জোরে চাপ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করলে দাঁতের গোড়া ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। এতে দাঁত অকালে পড়ে যেতে পারে। এছাড়া, দাঁতে থাকা এনামেল ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। এমনকি মাড়িরও নানা ক্ষতি হতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জোরে চাপ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করার ফলে দাঁতের এনামেল খারাপ হয়ে যায়। এতে মুখের স্বাস্থ্যও ক্ষতিগ্রস্থ হয়। মুখে জীবাণুর সংক্রমণ হতে পারে। এছাড়াও নানারকম অসুখ দেখা দিতে পারে। শুধু তাই নয়, গরম কিংবা ঠান্ডা খাবার খাওয়ার সময়ে দাঁতে শিরশিরানিভাব দেখা দিতে পারে।

জোরে চাপ দিয়ে দাঁত মাজার পাশাপাশি মানুষ যে ভুল প্রায়শই করে থাকেন, তা হলো- বেশি পরিমাণে ও সময় নিয়ে দাঁত মাজার প্রবণতা। বিশেষজ্ঞদের মতে, দুই মিনিট সময় দিয়ে দাঁত ব্রাশ করা জরুরি। কিন্তু অনেক মানুষই এর থেকে বেশি সময় কিংবা দিনের নানা সময়ে বহুবার দাঁত ব্রাশ করে থাকেন। বেশি করে দাঁত ব্রাশ করলে দাঁতের পাশাপাশি মাড়িও ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

বিশেষজ্ঞদের আরও পরামর্শ, প্রতি তিন মাস পর পর ব্রাশ পরিবর্তন করা জরুরি। ব্রাশ ব্যবহার করতে করতে শক্ত হয়ে যায়। শক্ত ব্রাশ ব্যবহার করলে দাঁত খুবই ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

সূত্র: এবিপি আনন্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *