গিনেসে স্থান পাওয়ার অপেক্ষায় ভেনেজুয়েলার ১২ হাজার সুর-সাধক

গিনেসে স্থান পাওয়ার অপেক্ষায় ভেনেজুয়েলার ১২ হাজার সুর-সাধক

মজার খবর স্পেশাল

নভেম্বর ১৬, ২০২১ ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ

সবচেয়ে বড় অর্কেস্ট্রার রেকর্ডটা রাশিয়ার কাছ থেকে ছিনিয়ে নিতে রাশিয়ারই এক সুরস্রষ্টার মাস্টারপিস বাজিয়েছেন ভেনেজুয়েলার ১২ হাজার মিউজিশিয়ান। তাদের স্বপ্ন পূরণ হবে কিনা তা দশ দিনের মধ্যে জানা যাবে।

দু’বছর আগে সবচেয়ে বড় অর্কেস্ট্রার স্বীকৃতি রাশিয়ার বাদকদের দিয়েছিল গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস। সেই বাদকদলে ছিলেন মোট আট হাজার ৯৭ জন। সংখ্যার দিক থেকে অবশ্য রুশদের অনেক পিছনে ফেলে দিয়েছেন ভেনেজুয়েলানরা। কোথায় আট হাজার ৯৭ আর কোথায় ১২ হাজার! কিন্তু শুধু বেশি মিউজিশিয়ান থাকলেই তো হবে না, তারা কতক্ষণ বাজিয়েছেন, কেমন বাজিয়েছেন-সেসবও বিচারকদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ। এখন সেই খুঁটিনাটি দিকগুলোই বিচার-বিশ্লেষণ করে দেখছেন গিনেসের বিচারকরা।

এমনিতে নিজেদের পারফর্ম্যান্সে ভেনেজুয়েলার মিউজিশিয়ানরা খুব খুশি। সাবেক রুশ কম্পোজার পিওতর ইলিচ চাইকোভস্কির ‘স্লাভোনিচ মার্চ’ যতটা সম্ভব নিখুঁতভাবেই বাজিয়েছেন তারা। বাজিয়েছেন টানা ১২ মিনিট।

না, সবাই শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বাজাননি। তবে ১২ থেকে ৭৭ বছর বয়সি মিউজিশিয়ানদের মধ্যে কেউ নিজের বাদ্যযন্ত্র ৫ মিনিটের কম বাজাননি। তাই শনিবার ভেনেজুয়েলার মিলিটারি অ্যাকাডেমিতে পারফর্ম্যান্স শেষে বাদ্যযন্ত্র উঁচিয়ে ধরে উল্লাসে মেতে ওঠেন তারা। সেই উচ্ছ্বাসটা ছিল নিজের কাজ সাধ্যমতো ভালো করতে পারার। তার সঙ্গে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লেখানোর উচ্ছ্বাসও যোগ হবে কিনা তা জানতে আরো কয়েকদিন অপেক্ষায় থাকতে হবে তাদের।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *