এরশাদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

এরশাদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

রাজনীতি স্লাইড

জুলাই ১৪, ২০২২ ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৯ সালের ১৪ জুলাই সকাল পৌনে ৮টায় ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) মারা যান তিনি।

তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিকেলে বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে স্মরণসভা করবে এরশাদ ট্রাস্ট। দিনব্যাপী কোরআন খতম, মিলাদ-মাহফিল এবং দুপুরে হাইকোর্ট মাজারে দুস্থদের মাঝে বিরিয়ানি বিতরণ করবেন বিদিশা এরশাদ।

এছাড়া বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে দলটি। রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে এরশাদের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন নেতাকর্মীরা। এরপর সকাল ১০টা থেকে বিকেল পর্যন্ত কুলখানি, বিকেলে মিলাদ মাহফিল ও তোবারক বিতরণ করবেন তারা।

১৯৩০ সালের ২০ মার্চ বর্তমান কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ি উপজেলায় নানার বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন এরশাদ। তার পৈত্রিক নিবাস অবিভক্ত ভারতের কোচবিহার জেলার দিনহাটা মহকুমা শহরে।

তার বাবার নাম মৌলভী মকবুল হোসেন। তিনি ছিলেন একজন খ্যাতনামা আইনজীবী। তার বাবামহ মৌলভী শাহাদৎ হোসেনও ছিলেন একজন প্রখ্যাত আইনজীবী এবং তিনিই ছিলেন কোচবিহার অঞ্চলের প্রথম মুসলিম আইনজীবী। এরশাদের মায়ের নাম মজিদা খাতুন।

এরশাদ ছিলেন ৯ ভাই-বোনের মধ্যে দ্বিতীয় সন্তান এবং চার ভাইয়ের মধ্যে প্রথম। তার ডাকনাম ছিল পেয়ারা। তার শৈশব ও কৈশোর কেটেছে দিনহাটায়। দিনহাটা হাইস্কুল থেকে তিনি ১৯৪৬ সালে ম্যাট্রিক পাস করেন।

ম্যাট্রিক পাসের পর দিনহাটা ছেড়ে এরশাদ ১৮৪৬-৪৭ শিক্ষাবর্ষে রংপুর কারমাইকেল কলেজে ইন্টারমিডিয়েটে ভর্তি হন। এ কলেজে অধ্যয়নকালে তিনি ক্রীড়া ও সাহিত্য উভয় ক্ষেত্রে সমানভাবে যুক্ত হন। ১৯৫০ সালে তিনি কারমাইকেল কলেজ থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে বি.এ পাস করেন। পরে তার বাবার ইচ্ছায় তিনি এম.এ করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন।

১৯৮৬ সালের ১ জানুয়ারি তিনি জাতীয় পার্টি গঠন করেন এবং দলটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হিসেবে রাজনীতি ও সাংগঠনিক যাত্রা শুরু করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.