ইতালি ছেড়ে কোথায় যাচ্ছেন রোনালদো?

ইতালি ছেড়ে কোথায় যাচ্ছেন রোনালদো?

খেলা স্পেশাল

মে ৮, ২০২১ ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ

পেশাদার ক্যারিয়ারে বাজে একটা মৌসুম পার করা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো যে ইতালি ছাড়ছেন সেটা প্রায় নিশ্চিত। তাইতো রোলানদোর সম্ভাব্য দলবদল নিয়ে বাড়ছে গুঞ্জন। কারো কারো মতে স্পোর্টিং লিসবনেই ফিরছেন তিনি। এ তালিকায় পিএসজির সঙ্গে আছে তার সাবেক দুই ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও। কেউ রোনালদোর গন্তব্য দেখছেন বুড়োদের মেজর সকার লিগে। ক্রিস্টিয়ানোর সম্ভাব্য দলবদলের বিস্তারিত দেখে নেওয়া যাক-

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো দস সান্তোস আলভেইরো। যিনি আছেন বলেই হয়তো ফুটবলটা এখনও এত সুন্দর। গেলো দেড় দশকেরও বেশি সময় মেসির সঙ্গে তার দ্বৈরথ ফুটবল বিশ্বকে দিয়েছে রোমাঞ্চের অন্যরকম মাত্রা। সত্যিকারের কিংবদন্তিদের কাছে বয়স তো একটা সংখ্যা মাত্র। তাইতো ৩৬ পেরিয়েও ছুটছে রোনালদোর বাজির ঘোড়া।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে সময়টা একেবারেই ভালো যাচ্ছে না তার। ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে উজ্জ্বল হলেও পেশাদার ক্যারিয়ারে য়্যুভেন্তাসের হয়ে সুপার কোপা ছাড়া এবার জিততে পারেননি কিছুই। আবেগকে প্রাধান্য দিতে ইতালিতে আসা রনের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো নয় য়্যুভ ম্যানেজমেন্টের। সম্পর্কের টানাপড়েন কোচ পিরলোর সঙ্গেও। তুরিনোয় ক্রিস্টিয়ানো হতাশ আর বড্ড একা। তাইতো প্রস্তুতি নিচ্ছেন য়্যুভদের গুডবাই বলার।

প্রশ্ন, তবে কোথায় যাচ্ছেন এই পর্তুগিজ যুবরাজ? ৩৬ বছর বয়সী রোনালদোকে পেতে টাকার ঝুড়ি নিয়ে বসে আছে ইউরোপের বড় বড় দলগুলো। তবে সব ছাপিয়ে আলোচনায় ৫ ক্লাব।

টাকার চেয়ে আবেগকে বরাবরই প্রাধান্য দেওয়া সিআরসেভেন নাড়ির টানেই নাকি ফিরবেন তার পেশাদার প্রথম ক্লাব স্পোর্টিং সিপিতে। এর আগেও একাধিকবার বাড়ি ফেরার কথা বলেছিলেন রোনালদো। সে সম্ভাবনা জোরালো হয়েছে তার পৃষ্ঠপোষক নাইকি এখন লিসবনের এই ক্লাবটিরও অফিসিয়াল স্পন্সর। তারাই নাকি ক্রিস্টিয়ানোকে ঘরে ফেরাতে করছে মধ্যস্থতা।

সম্ভাবনার পালে জোড় হাওয়া রোনালদোকে তারকা করার ক্লাব ম্যান ইউনাইটেডকে ঘিরেও। কাভানিকে ছেড়ে দিলে ৭ নম্বর জার্সিটা খালি হচ্ছে রেড ডেভিলদের। সেখানেই ফিরছেন ক্রিস্টিয়ানো দাবি ইউরোপের গণমাধ্যমের।

রিয়াল মাদ্রিদকে সম্ভাব্য সব শিরোপা জেতানো রোনালদোকে আবারও মাদ্রিদে দেখতে চায় সমর্থকদের একটা বড় অংশ। সুপার কাপ নিয়ে ভাবমূর্তি হারানো পেজেরের জন্য যা হতে পারে এক্স ফ্যাক্টর। তবে সে ট্রান্সফারে বড় বাঁধা জিদান। বুড়ো রোনালদোর বিপরীতে এমবাপ্পে আর হল্যান্ডেই আগ্রহ তার।

এমবাপ্পে আর নেইমার, চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর প্রসঙ্গে দু’জনেই ঝুলিয়ে রেখেছেন পিএসজিকে। তৃতীয় অপশন হিসেবে তাই ক্রিস্টিয়ানোকে দলে টানার পরিকল্পনা প্যারিসিয়ানদের। গুঞ্জন মেসিও আসছেন প্যারিসে। তাই যদি হয় এক অসম্ভবই হবে সম্ভব। এক দলে মাঠ মাতাবেন এই গ্রহের সেরা দুই ফুটবলার।

তুখোড় এমন ফর্মের থাকা অবস্থায় মেজর সকার লিগে খেলাটা ক্রিস্টিয়ানোর জন্য একটু তাড়াতাড়িই হয়ে যাবে। তবে ইন্টার মিয়ামির মালিক ডেভিড বেকহ্যাম যেখানে মধ্যস্থতা করছেন, সেখানে এমন কিছু দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না। সবমিলিয়ে সোনার ডিম পাড়া হাস ক্রিস্টিয়ানোর গন্তব্য নিয়ে ধাঁধায় আপনাকে থাকতেই হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.