আগ্রাসী ইসরায়েলকে ৭৩ কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আগ্রাসী ইসরায়েলকে ৭৩ কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক স্লাইড

মে ১৮, ২০২১ ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ

গাজায় ইসরায়েলের সর্বাত্মক সন্ত্রাসী হামলার মধ্যেই দেশটিকে আরও অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এরমধ্যে গত ৫ মে ইসরায়েলের কাছে সাড়ে ৭৩ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির অনুমোদন দিয়েছে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন।

সোমবার (১৭ মে) মার্কিন কংগ্রেসের বরাত দিয়ে এ তথ্য প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটন পোস্ট।

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকা নিয়ে ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে মতবিরোধ তৈরি হয়েছে। বাইডেন মানবাধিকার রক্ষার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সেটি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন ডেমোক্র্যাটরা।

সমালোচনা শুরু হয়েছে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে অব্যাহতভাবে সমর্থন নিয়েও। এর মধ্যেই আবার ইসরায়েলকে ব্যাপক অস্ত্র-সরঞ্জাম সরবরাহ করতে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। এ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন মার্কিন কংগ্রেসের বেশকিছু আইনপ্রণেতা।

এদিকে বাইডেন প্রশাসন বরাবরই বলে আসছে, ফিলিস্তিনের হামলা থেকে বাঁচতে ‌ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে। অন্যদিকে ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ বন্ধে গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল হামাসের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আসছে বাইডেন প্রশাসন।

ওয়াশিংটনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, নতুন প্রজন্মের কূটনীতিকরা চলমান সহিংসতায় ওয়াশিংটনের অস্ত্র বিক্রির এ উদ্যোগকে প্রশ্নবিদ্ধ করছেন। আইনজীবীদের মধ্যে কেউ কেউ জানতে চেয়েছেন, অস্ত্র বিক্রির এ সিদ্ধান্তটা এখন কেন? এর পেছনে কী উদ্দেশ্য?

তারা মনে করছেন, যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র বিক্রির এ সিদ্ধান্ত ইসরায়েলকে আরও আগ্রাসী করবে এবং ফিলিস্তিনের ওপর সহিংসতা বাড়বে।

এদিকে ফিলিস্তিনিদের ওপর ইহুদিবাদী ইসরায়েলের অব্যাহত আগ্রাসনের প্রতিবাদ জানিয়েছেন মার্কিন কংগ্রেসে প্রতিনিধি পরিষদের সদস্য কোরি বুশ। তিনি ফিলিস্তিনকে স্বাধীন করার জন্য প্রয়োজনীয় সমর্থন দিতে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.