অল্প বয়সেই চুল পেকে যায় কেন?

অল্প বয়সেই চুল পেকে যায় কেন?

লাইফস্টাইল স্লাইড

জুন ২৩, ২০২২ ৯:৫৫ পূর্বাহ্ণ

বয়স বাড়লে চুলে পাক ধরবেই౼এমন ধারণা সবারই আছে। কিন্তু চুল সাদা হওয়া বা পেকে যাওয়ার সঙ্গে বয়স বাড়া বা কমার কোনো সম্পর্ক নেই। আজকাল অল্প বয়সেই অনেকের চুলের ফাঁক থেকে উঁকি মারে পাকা চুল। আর অসময়ে চুল পাকা যেকোনো মানুষের জন্য বিপাকের। অনেকেই মনে করেন, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন ও মানসিক চাপই এর পেছনে দায়ী।

আধুনিক সমাজব্যবস্থায় কাজের ধরন বদলেছে। তাই মনের ওপর চাপও বাড়ছে। ফলে অনেকেরই কম বয়সে চুল পাকতে দেখা যাচ্ছে। পরিবেশদূষণ এবং আধুনিক জীবনযাত্রার স্ট্রেসের কারণে অল্প বয়সেই চুল পেকে যায়। একবার চুল পাকতে শুরু করলে খুব দ্রুত মাথার বাকি অংশও সাদা হতে থাকে। তাই মাথায় সাদা চুল দেখা গেলেই সতর্ক হন। এ সমস্যা সমাধানে কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

বয়সের সঙ্গে সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই চুলে পাক ধরতে শুরু করে। পাকা চুল কালো করতে অনেকেই বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহার করেন। তাতে সাময়িকভাবে চুলের সাদা ভাব খানিকটা কমে গেলেও দীর্ঘস্থায়ী কোনো সুফল পাওয়া যায় না। বরং রাসায়নিক দ্রব্য মিশ্রিত এ ধরনের বাজারচলতি রং ব্যবহারে চুলের স্বাস্থ্য খারাপ হয়ে যায়। এমনকি, পাকা চুলের পরিমাণও বৃদ্ধি পায়। একবার রং করার পর প্রায় ৭-১০ দিনেই আবার সাদা চুল উঁকি দেয়।

পাকা চুল কালো করার আগে জানা দরকার, অল্প বয়সেই কেন পেকে যাচ্ছে চুল?

১. আমিষ শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টি জোগাতে সাহায্য করে। কিন্তু অত্যধিক মাত্রায় মাংস, তেলজাতীয় মাছ খেলে কম বয়সেই পেকে যেতে পারে চুল। তাই এ ধরনের আমিষ খাবার বেশি পরিমাণে না খাওয়াই ভালো।

২. বাজারে অনেক প্রক্রিয়াজাত খাবারে মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট পাওয়া যায়। এ উপাদানটির কারণে কম বয়সেই পেকে যেতে পারে চুল। তাই চুলের অকালপক্বতা রোধ করতে এ ধরনের খাবার বেশি পরিমাণে না খাওয়াই ভালো।

৩. বেশি চিনি বা মিষ্টিজাতীয় খাবার খেলে দ্রুত চুল পেকে যেতে পারে। শরীর সুস্থ রাখার পাশাপাশি অল্প বয়সে চুল পাকার সমস্যা কমাতে এ ধরনের খাবার এড়িয়ে চলুন।

সূত্র: আনন্দবাজার

Leave a Reply

Your email address will not be published.